আওয়ামীলীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এম শাহারিয়ার রুমীর ইন্তেকাল


জিল্লুর রহমান রাসেল, ফরিদপুর:

ফরিদপুরের বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এম শাহরিয়ার রুমি ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

২৪ মার্চ বুধবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। তিনি স্ত্রী ও এক ছেলে রেখে যান।

কিডনি রোগে আক্রান্ত শাহরিয়ার রুমি গত ১৫ ফেব্রুয়ারি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে তিনি লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বুধবার (২৪ মার্চ) বাদ জোহর সিএমএইচ মসজিদে প্রথম জানাযা শেষে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় এবং বাদ জোহর ফরিদপুর শেখ জামাল স্টেডিয়ামে তৃতীয় জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর তাকে ঢাকার মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবর স্থানে দাফন করা হবে।

শাহরিয়ার রুমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক সহযোদ্ধা ও বাংলাদেশের সংবিধান রচয়িতাদের অন্যতম সদস্য মরহুম এ্যাডঃ শামসুদ্দিন মোল্লার জেষ্ঠ্য সন্তান।

স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এম শাহরিয়ার রুমী ছাত্রাবস্থাতেই ছাত্রলীগের মাধ্যমে রাজনীতিতে যোগ দেন। তিনি ফরিদপুর রাজেন্দ্র কলেজের সাবেক ভিপি ও জিএস এবং ১৯৭৩ সালে ছিলেন ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের পাশাপাশি তিনি ক্রীড়াঙ্গনেও অবদান রেখেছেন। তিনি আবাহনী ক্রিড়া চক্রের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও ফরিদপুর জেলা আবাহনী ক্রীড়া চক্রের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক।

তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ.কে আজাদ, ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট সুবল চন্দ্র সাহা, ফরিদপুর প্রেসক্লাব, ফরিদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থা, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ফরিদপুর, ফরিদপুর মোটর ওয়ার্কার্স ইউনিয়ন, ফরিদপুর আন্তজেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন, ফরিদপুর জেলা ট্রাক ড্রাইভার্স ইউনিয়ন, জেলা নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তিবর্গ।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *