ফরিদপুরের কানাইপুর ইউ.পি চেয়ারম্যানের সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়


নিজস্ব প্রতিবেদক: ফরিদপুর সদর উপজেলার কানাইপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ফরিদপুর জেলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফকির মোঃ বেলায়েত হোসেন শুক্রবার দুপুরে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভা করেছেন। বেলা ২টায় সদর উপজেলার কানাইপুর ইউনিয়নের রনকাইর বাজারস্থ নিজস্ব কার্যালয়ে তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ফরিদপুরের দুর্নীতিবিরোধী অভিযান ও শুদ্ধি অভিযানের জন্য দলীয় সভানেত্রী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। সাম্প্রতিক সময়ে মানি লন্ডারিং মামলায় আটক রুবেল-বরকত এর দেওয়া বক্তব্যকে ষড়যন্ত্র ও উদ্দেশ্যমূলক আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন আমি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান, আমার পিতা আলহাজ্ব তমিজউদ্দিন ফকির এই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। আমি ছাত্রজীবন থেকে রাজনীতির সাথে জড়িত, এছাড়া জেলা শ্রমিকলীগ ও কানাইপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেছি।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দলকে সুসংগঠিত করার সংগ্রামে অনেকবার কারাবরন করেছি। ১/১১ সময়ে নির্যাতনের শিকার হয়েছি। রাজবন্দি হিসেবে জেল খেটেছি। ফরিদপুরের প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা শ্রদ্ধেয় বিপুল ঘোষের হাত ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে এসেছি। রুবেল-বরকত রাজনৈতিকভাবে সবসময় আমার বিরুদ্ধে অবস্থান করেছে এবং ৬ আগস্ট দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় সদ্য প্রকাশিত সংবাদে আমার নাম উল্লেখ করেছে, এগুলো বরকত-রুবেলের পরিকল্পিত ভিত্তিহীন মনগড়া। এই বক্তব্য আমাকে বিপদে ফেলার জন্য। আমি এগুলোর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি। আমার বিরুদ্ধে কিছু কুচক্রী মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এবং বিভিন্ন কৌশলে নানা ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার হচ্ছে। এই বিষয়ে আমি আইনগত ব্যবস্থার দাবী জানিয়ে কোতয়ালী থানায় ২টি জিডি করেছি। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীদের বিচার দাবী করছি।

এসময় সাংবাদিকরা তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাজনীতি করতে গেলে কারো প্রিয়, কারো অপ্রিয় হতে হয়। সবসময় সবার মন জয় করা সম্ভব হয় না। তিনি ফরিদপুর আওয়ামী লীগে ছদ্মবেশী বিএনপি-জামায়াতের গুপ্তচরদের শনাক্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান। সেই সাথে সাংবাদিকদের বলেন, আপনারা সঠিকভাবে অনুসন্ধান করুন। আমার কোন খারাপ কাজ থাকলে তা অবশ্যই তুলে ধরুন। দুই দুইবার গণমানুষের বিপুল ভোটে ৯নং কানাইপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি। আমি মুজিব আদর্শে বিশ্বাসী হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’র রাজনৈতিক প্রজ্ঞায় নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছি, আগামীতেও কাজ করে যাবো, ইনশাআল্লাহ্।

এসময় স্থানীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কানাইপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ মুহসিন আলী, অটোটেম্পু জেলা মালিক সমিতির কার্যকরী সভাপতি তাপস অধিকারী ও অটোটেম্পু শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি কবির হোসেন, ইউপি সদস্য আবুল কাশেম ব্যাপারী, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আলম খান সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *