ফরিদপুরে আট দিনব্যাপী মহাপবিত্র উরস শরীফ শুরু


ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি:

ফরিদপুর জেলার সদরপুরের আটরশিতে ৮ দিনব্যাপী মহাপবিত্র উরস শরীফ শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে।
এ উপলক্ষে আটরশীতে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য পেশ করেন সমন্বয়কারী এস এম শহীদুল ইসলাম শাহীন, উপস্থিত ছিলেন বৃহত্তর ফরিদপুর কর্মী গ্রুপের প্রধান ও ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি কবিরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও বৃহত্তর ফরিদপুর কর্মী গ্রুপের সদস্য নাইমুল ইসলাম।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় বিশ্বওলী হযরত মাওলানা শাহ সুফি খাজা বাবা ফরিদপুরী (কু সে আ) সাহেব কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও বিশ্বজনীন সৌহার্দের পবিত্র ভূমি খানকায়ে মুজাদ্দেদীয়া বিশ্ব জাকের মঞ্জিল পাক দরবার শরীফ আটরশি ফরিদপুরী মহাপবিত্র উরস শরীফ ২০২১ এর দিন তারিখ বিশ্ব জাকের মঞ্জিল পাক দরবার শরীফের মহান প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা শাহ সুফি খাজা বাবা (কু ছে আ) সাহেব কর্তৃক রচিত বিশ্ব জাকের মঞ্জিল পরিচালনা পদ্ধতি মনামোক্স নসিহত শরীফে উল্লেখ করেছেন তিনার উক্ত নির্দেশনা মোতাবেক মহা পবিত্র বিশ্ব উরস শরীফ বাংলা ফাল্গুন মাসের প্রথম সপ্তাহের শনি রবি সোম ও মঙ্গলবার মোতাবেক এ বছর ইংরেজি ২০, ২১, ২২, ২৩ ফেব্রুয়ারী নির্ধারিত হয়।

এরই ধারাবাহিকতায় এবছর কোভিদ ১৯ তথা করণা ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতি বিবেচনায় এবং সরকার প্রদত্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও বৃহৎ গণ জামায়াত এ রাতে এ বছর দেশের সমস্ত অঞ্চলকে ৮ ভাগে বিভক্ত করে ১৯ ফেব্রুয়ারি হতে ২৬ পর্যন্ত প্রতি বিভাগের জন্য একদিন করে সর্বমোট আটদিন উরস শরীফ উদযাপন করা হবে।

দরবার শরীফের প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি বিশ্ব জাকের মঞ্জিল পাক দরবার শরীফ কর্মী গ্রুপ কর্তৃক গ্রহণ করা হয়েছে । উক্ত ধর্মীয় অনুষ্ঠানে সরকার প্রদত্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা ও বৃহৎ গণজমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়া বিশ্ব জাকের মঞ্জিলের মহাপবিত্র উরস শরীফে প্রত্যেক ফরজ ইবাদতের পাশাপাশি কোরআন তেলাওয়াত জিকির আজগার, মোরাকাবা মোশাহিদা ওয়াজ নসিহত ও ওয়াজ মাহফিল এবং সুন্নত এবাদত এর পাশাপাশি নফল ইবাদত অনুষ্ঠিত হবে।

এই মহা পবিত্র বিশ্ব উরস শরীফের তারিখ মনোনীত থাকায় প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ আশেকান জাকেরান ধর্মপ্রাণ মুমিন মুসলমান গন ও অন্যান্য ধর্মের ভক্তবৃন্দ গাড়ি লঞ্চ ট্রলার সহ অন্যান্য জন্ম নিয়ে উপস্থিত হন এবং যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে মহাপবিত্র উরস শরীফ উদযাপন শেষে নিজ গন্তব্যে প্রত্যাবর্তন করেন। সংবাদ সম্মেলনে মহাপবিত্র উরস শরীফের অনুষ্ঠান সফল করার জন্য সর্বস্তরের সাহায্য ও সহযোগিতা কামনা করা হয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *