ফরিদপুরে বন্যার্তদের রান্না করা খাবার পরিবেশন করলেন ডিসি অতুল সরকার


মোঃ ইনামুল হাসান মাসুম:
ফরিদপুর সদর উপজেলার আওতাধীন আলিয়াবাদ ইউনিয়নে বন্যায় বাড়ি ঘর হাড়িয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো রাস্তার আশপাশে বিভিন্ন উঁচু জায়গায় আশ্রয় নিয়েছে। বানভাসী মানুষ গুলো বিভিন্ন সমস্যার কারণে সময়মতো খাবার রান্না করতে পারছে না, তাদের কথা বিবেচনা করে ফরিদপুরের সুযোগ্য জেলা প্রশাসক অতুল সরকার নির্দেশনা প্রদান করেন ফরিদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুম রেজাকে পুষ্টিকর খাবার রান্না করে যথা সময়ে বিতরণ করার জন্য।

সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাসুম রেজা তাৎক্ষণিকভাবে প্রায় পাঁচ শতাধিক বানভাসী পরিবারের জন্য মানসম্মত ও পুষ্টিকর খাবার রান্না করার ব্যবস্থা করেন তার নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবী টিম দিয়ে। খাবার রান্নার আয়োজন সহ যাবতীয় ব্যবস্থা করেন। আজ দুপুর ২ ঘটিকায় আলিয়াবাদ ইউনিয়নে উক্ত খাবার বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক জনাব অতুল সরকার।

জেলা প্রশাসক বলেন, বানভাসী যে সমস্ত পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করছিল তাদের কথা বিবেচনা করে আমরা তাদেরকে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে খাবার সরবরাহ করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমাদের এই কার্যক্রম চলমান থাকবে যতদিন তারা তাদের ঘরবাড়িতে ফিরে গিয়ে স্বাভাবিক জীবনযাপন শুরু করবে ততদিন পর্যন্ত আমাদের এই কার্যক্রম চলমান থাকবে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, সুযোগ্য জেলা প্রশাসকের নির্দেশনায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্বেচ্ছাসেবীদের সহযোগিতায় আমরা প্রতিদিন আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থিত সকল পরিবারকে মানসম্মত ও পুষ্টিকর খাবার নিয়মিত সরবরাহ করব।

তিনি আরো বলেন, যাদের ঘর বাড়ির ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তাদেরকে নতুন ঘর তৈরি করে দিব এবং যাদের গবাদি পশুর ক্ষতি হয়েছে তাদেরকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার চেষ্টা করব। এছাড়া বানভাসী মানুষের জন্য অস্থায়ী ঘর তৈরি এবং তাদের বসবাসের যাবতীয় সামগ্রী আমরা ইতিমধ্যে সরবরাহ করতে সক্ষম হয়েছি। এছাড়া তাদের স্যানিটারি লেট্রিন এবং বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ফরিদপুর সদর উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব মোঃ আসলাম মোল্লা, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাসুম রেজা, উপজেলা প্রকল্প অফিসার নুরুন্নাহার বেগম সহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

উক্ত খাবার বিতরণ কার্যক্রমের সার্বিক সহযোগিতা করেছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন তরুছায়া ফাউন্ডেশন।