ফরিদপুরে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে মতবিনিময় ও প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত


স্টাফ রিপোর্টার:
“মা” আসছেন, শরতের শিউলি ফোটা ভোরে মা এবার দোলায় চড়ে আসছেন, আর গমন করবেন গজে চড়ে, তাই মায়ের প্রতিচ্ছবি স্বরূপ সম্পূর্ন স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারদীয় দুর্গাপূজা পালন উপলক্ষে বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন ফরিদপুর জেলা ও উপজেলা কমিটির সাথে জেলা প্রশাসনের এক মতবিনিময় ও প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এই মতমিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ফরিদপুর জেলা প্রশাসক অতুল সরকারের সভাপতিত্বে এসময় মতবিনিময় ও প্রস্তুতি সভায় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রোকসানা রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আসলাম মোল্লা, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ঝর্ণা হাসান, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ, রাজেন্দ্র কলেজ অধ্যক্ষ মোঃ মোশার্রফ আলী। এ ছাড়াও বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন কমিটির ফরিদপুর জেলা শাখার সভাপতি ড. যশোদা জীবন দেবনাথ (সিআইপি), সাধারণ সম্পাদক অরুন কুমার মন্ডল, সহ-সভাপতি অধ্যাপক অসীম কুমার সাহা, শ্রী তাপস সাহা, শ্রী আশুতোষ মন্ডল, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক শ্রী অশোক কুমার রাহুত পাপন, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক শ্রী দীপঙ্কর দত্ত, সাংস্কৃতিক সম্পাদক শ্রী গৌতম ভদ্রসহ জেলা, উপজেলা কমিটিবৃন্দ ও বিভিন্ন মন্দিরের সভাপতি ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় প্রসাশনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা বলেন, মন্দির গুলো নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শান্তিপুর্ন ভাবে পূজা অনুষ্ঠানের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। প্রতিটি মন্দিরে পুলিশের পাশাপাশি আনসার বাহীনি ও গ্রাম পুলিশ মোতায়েন করা হবে। পুজা চলাকালিন মন্দির এলাকায় সিসি ক্যমেরার ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য ফরিদপুর জেলা পুজা উদযাপন কমিটিকে অনুরোধ করেন।

এ ব্যপারে বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন কমিটি ফরিদপুর জেলা শাখার সভাপতি ড. যশোদা জীবন দেবনাথ (সিআইপি) বলেন, হিন্দু ধর্মালম্বীদের জন্য খুবই গুরুত্বপুর্ন এ শারদীয় উৎসব। এবার ফরিদপুর জেলায় মোট মোট পূজা ৭৬১ টি পুজা মন্ডবে শারদীয় দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়াও সদর উপজেলায় ১০৪ টি, ও পৌরসভায় ৮৫ টি পুজা উদযাপন হচ্ছে। এসময় এই উৎসবকে সাফল্য মন্ডিত করার জন্য ফরিদপুর জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন ব্যাক্তিবর্গদের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

এসময় জেলা প্রশাসক অতুল সরকার প্রস্তুতি সভার বক্তব্যে বলেন, আপনারা যারা পূজা করবেন নিজেরাই একটি কমিটি করে আইন শৃঙ্খলার পাশাপাশি মন্ডবে পাহাড়ার ব্যাবস্থা করতে হবে। পূজায় মাদকদ্রব্য ব্যাবহার রোধ করতে হবে। প্রত্যেক দর্শনার্থীদের হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত জীবানুমুক্ত ও মাক্স পরিধান করে ভেতের প্রবেশ করার আহব্বান জানান। মাকে সন্তুষ্ট করার অভিপ্রায়ে পুজার অংশ হিসাবে অঞ্জুলী দেওয়ার যে কার্যক্রম পরিচালোনা করা হয়, সেখানে দলবদ্ধ ভাবে ভীর না জমিয়ে একটু সময় সাপেক্ষে স্বাস্থবিধী ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে কার্যক্রম পরিচালোনার অনুরোধ জানান জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

অনুষ্ঠান শেষে ফরিদপুর জেলা প্রশাসক অতুল সরকারকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান, বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন কমিটি ফরিদপুর জেলা শাখার সভাপতি ড. যশোদা জীবন দেবনাথ (সিআইপি)সহ কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *