ফরিদপুর সদর উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো বাল্য বিবাহ


স্টাফ রিপোর্টার:
ফরিদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাসুম রেজার নির্দেশনা অনুযায়ী ১৩ জুলাই ২০২০ রোজ সোমবার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব শাহ্ মোঃ সজীব এর হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহের মত এক অভিশাপ থেকে রক্ষা পেল ১৩ বছর বয়সী এক স্কুল শিক্ষার্থী।

সোমবার বিকাল ৫ টার দিকে ফরিদপুর সদর উপজেলাধীন কাফুরা (মুন্সিবাজার সংলগ্ন) মোছা: লিমা ইসলাম প্রীতির বাল্য বিবাহের আয়োজন করে তার পিতা মোঃ জাহিদ মল্লিক, খবর পেয়ে সেই বাড়িতে হাজির হন এসিল্যান্ড ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহ্ মোঃ সজীব ও ভ্রাম্যমান আদালতের একটি বিশেষ টিম, প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় বর তুহিন হোসেন।

প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপে বন্ধ হয় এই মেয়েটির বাল্য বিবাহ, দেশের এই দূর্যোগ কালীন সময়ে অধিক লোকজন জমায়েত করে বাল্য বিবাহের আয়োজন করায় মেয়ের বাবাকে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন, ২০১৭ মোতাবেক জরিমানা করা হয় এবং মেয়ের ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না এই বিষয়ে লিখিত মুচলেকা নেওয়া হয়।

বাল্যবিবাহ রোধে প্রশাসনের কার্যক্রম অব্যাহত আছে এবং থাকবে বলে জানিয়েছেন এসিল্যান্ড শাহ্ মোঃ সজীব।