ফরিদপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা লোকমান হোসেন মৃধার মৃত্যু


মোঃ ইনামুল হাসান মাসুম:
দীর্ঘ ১৭ দিন করোনার সাথে যুদ্ধ করে অবশেষে পরাজিত হয়ে না ফেরার দেশে পারি জমালেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ফরিদপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ- সভাপতি এবং জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মৃধা।
আজ শুক্রবার সকালে ১১টা ৪৫মিনিটে ঢাকার গ্যাসট্রোলিভার হাসপিতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরন করেন তিনি।

লোকামান হোসেন মৃধার মৃত্যুর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন ফরিদপুর জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ চুন্নু শেখ। এসময় তিনি জানান, গত ২৩ জুন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা লোকমান হোসেন মৃধার করোনা পজেটিভ আসে। একদিন বাসায় চিকিৎসা গ্রহনের পরে শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মৃধাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের আইসিইউ বিভাগে ভর্তি করা হয়। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২ দিন চিকিৎসা নেবার পরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত২৬ জুন ঢাকার গ্যাসট্রোলিভার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এসময় দীর্ঘ ১৭ দিন করোনার সাথে যুদ্ধ করে আজ সকালে মৃত্যু বরন করেছেন এই বীর মুক্তিযোদ্ধা।
ফরিদপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন ফরিদপুর সদর আসনের এমপি আলহাজ্ব ইঞ্জিঃ খন্দাকার মোশাররফ হোসেন, ফরিদপুর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহা, সাধারন সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেনসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দগন। এছাড়া স্যারের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ এবং তার রুহের মাগফেরাত কামনা করেছেন ফরিদপুর সদর উপজেলার ইউএনও মোঃ মাসুম রেজা, ফরিদপুরের বি এফ এফ‌ এর নির্বাহী পরিচালক আ ন ম ফজলুল হাদী সাব্বির, কানাইপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফকির মোঃ বেলায়েত হোসেন, সামাজিক সংগঠন তরুছায়া ফাউন্ডেশনের নেতৃবৃন্দ সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী।